কলমাকান্দায় স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না বেশিরভাগ মানুষ!

রাজেশ গৌড় রাজেশ গৌড়

দুর্গাপুর,নেত্রকোনা

প্রকাশিত: ১০:৪৭ অপরাহ্ণ, জুন ১৭, ২০২০

কলমাকান্দা (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি :
দেশব্যাপী (কোভিড-১৯) করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পেলেও কলমাকান্দায় সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না সাধারন জনগণ! আশংকা করা হচ্ছে অসাবধানতার কারনে নেত্রকোণার কলমাকান্দা উপজেলাব্যাপী ছড়িয়ে পরতে পারে এই প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস।

ঈদুল ফিতরের পর থেকে উপজেলা প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকেও তেমন কোন উদ্যোগ ও চোখে পড়ে না। ঘরের বাইরে বের হলে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বার বার ব্রিফিং দিলেও শতকরা ৫০ ভাগ মানুষই মাস্ক ব্যবহার করেন না। যারা ব্যবহার করছেন তাদের অনেককেই দায়সারা ভাবে মাস্ক ঝুঁলিয়ে রাখতে দেখা যায়। মাস্ক ব্যবহার করলে ও সামাজিক দুরত্ব মানছেন না। সরকারের পক্ষ থেকে জরিমানার নির্দেশনা থাকলেও কলমাকান্দায় উপজেলা প্রশাসন আজও কাউকে জরিমানা করেননি, এ রির্পোট লেখা পযর্ন্ত চলেনি কোন অভিযান। এভাবে চলতে থাকলে করোনাভাইরাস মহামারী আকারে ছড়িয়ে পরতে পারে বলে আশংকা করছেন সচেতন মহল।

উপজেলার হাট-বাজারে রাত ৯/১০টা পর্যন্ত খোলা থাকে প্রায় সব ধরণের দোকানপাঠ । নিয়মঅনুযায়ী দোকান বা মার্কেটের সামনে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা ও দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশনা থাকলেও কেউ মানছেন না এসব স্বাস্থ্যবিধি!

এবিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও প. প. কর্মকর্তা ডা. মুহাম্মদ আল মামুন সাংবাদিকদের জানান,কলমাকান্দায় ২০৫ জনের করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা ময়মনসিংহে পাঠানো হয়েছে। গত ১৬ জুন পর্যন্ত ১৫২ জনের রিপোর্ট আমরা হাতে পেয়েছি। আজকালের মধ্যে বাকি রিপোর্টগুলো পেয়ে যাব। এ পযর্ন্ত ৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন । এর মধ্যে ৪ জন সুস্থ হয়েছেন। আক্রান্ত ব্যক্তিরা যার যার নিজ বাড়ীতে আইসোলেশনে আছেন।

ঈদের পর আক্রান্তদের মাঝে খারনৈ ইউনিয়নের ১ জন ও সদর ইউনিয়নের ১ জন। বর্তমান প্রেক্ষাপটে সকলের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা প্রয়োজন। তবে কলমাকান্দায় বেশিরভাগ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছেন না।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সোহেল রানা বলেন- এতদিন করোনা ভাইরাসের প্রকোপ কলমাকান্দায় খুব একটা ছিল না । উপজেলায় হাট – বাজারে সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি মানার জন্য সচেতনতা মূলক প্রচার অব্যাহতর আছে । আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক আমরা আবারো কঠোর হব।