1. rajeshgourpress@gmail.com : rajesh24 :
  2. mediaitbd@gmail.com : mit : Editor
সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৪:৩২ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
শিরোনাম:
আজ শুভ বিজয়া, দুর্গাপুরে মণ্ডপে মণ্ডপে বিদায়ের সুর মোহনগঞ্জে গরু বাঁচাতে গিয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে বৃদ্ধা নিহত দুর্গাপুর পৌরশহরের পূর্জামন্ডপ পরিদর্শন করলেন মেয়র প্রার্থী এ্যাডভোকেট সজয় চক্রবর্ওী গুণীজন আর পদ আলাদা, গুণীজনরা দেশ ও জনগণের কল্যান করতে পারে-বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীন দুর্গাপুরে কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত আইপি টিভি ওনার্স এসোসিয়েশনের নবনির্বাচিত কমিটির সদস্য সচিব হলেন রাসেল মিয়া হৃদয় আইপি টিভি ওনার্স এসোসিয়েশনের নবনির্বাচিত কমিটির সদস্য সচিব হলেন রাসেল মিয়া হৃদয় নেত্রকোনায় কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছে তানভীয়া আজিম কলমাকান্দায প্রধানমন্ত্রী বরাবরে ফেসবুকে পোষ্ট দেয়া ছাত্রলীগ কর্মীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার দুর্গাপুর পৌরসভার ২৪ টি পূজা মন্ডপে আর্থিক সহায়তা দিলেন সমাজসেবক আলা উদ্দিন আলাল

ভাগনীকে বিবাহে বিরোধীতা ও মেয়েকে উক্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় প্রাণ গেল বারহাট্টার সোহাগের

  • আপডেট: শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ২০ বার পড়া হয়েছে

কে. এম. সাখাওয়াত হোসেন : ভাগনীকে বিবাহের বিরোধীতা করায় এবং মেয়েকে আরেক আসামি উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় প্রাণ দিতে হলো সোহাগ মিয়ার (৪৮)। তিনি বারহাট্টা উপজেলার চিরাম গ্রামের মৃত আ. রশিদের ছেলে এবং পেশায় ভাড়ায় মোটর সাইকেল চালক।

আসামিরা পূর্ব পরিকল্পনার অংশ হিসেবে রাতের বেলায় ব্রিজে বসে থাকে। রাত অনুমান ২টার দিকে সোহাগ মিয়া একা কুচ দিয়ে মাছ ধরতে আসলে পিছন থেকে জাপটে ধরে এলোপাথারি মারধর করে। শার্ট দিয়ে মুখ চেপে ধরে। এক পর্যায়ে ডোবায় বন্যার পানিতে ডুবিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে। পরে আসামিরা কুচরিপানা ও ঝাউয়ের লতাপাতা দিয়ে লাশ ডেকে চলে যায়।
এমন এক লোমহর্ষক ঘটনার বর্ণনা বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) রাতে এক প্রেস রিলিজে মাধ্যমে জানান নেত্রকোনার পুলিশ সুপার মো. আকবর আলী মুনসী।

তিনি প্রেস রিলিজে জানান, তথ্য প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ও গোয়ান্দা কার্যক্রম অব্যাহত রেখে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রসাশন) মো. ফকরুজ্জামান জুয়েল ও বারহাট্টা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সোহেল মিয়ার অক্লান্ত শ্রম ও মেধাকে কাজে লাগিয়ে গাজীপুর জেলা থেকে শাখাওয়াত হোসেনকে (১৯) গ্রেফতার করা হয়। তিনি বারহাট্টা উপজেলার চিরাম গ্রামের দ্বীন ইসলামের ছেলে।

তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মামলার অন্যতম আসামি ইবনে সাকিব ওরফে শাকিলকে (২০) চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড থেকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি একই উপজেলার জয়হাল গ্রামের আলী আকবর মাষ্টারের ছেলে। পরে শাকিল আদালতের কাছে এ ঘটনার ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করেছে। এ কাজে তারা পাঁচজন জড়িত ছিল এবং অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান পুলিশের এই উর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, গত ২৮ জুলাই দিনগত রাতে নিহত সোহাগ মিয়া মাছ ধরার জন্য কুচ, টর্চলাইট ও মাছর রাখার ব্যাগ নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন। ২৯ জুলাই সকালে বাড়িতে না ফেরায় নিহতের পরিবারের লোকজন ও স্বজনেরা খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন।

গত ১ আগস্ট সকাল সাড়ে ৭টার দিকে চিরাম গ্রামের মিলন মিয়া মাছ ধরতে ক্ষেতের ডোবায় গেলে পচা গন্ধ শুনতে পান এবং ঝাউয়ের লতাপাতা ও কুচুরীপানার নিচে গলিত লাশ দেখতে পায়। পরে পুলিশকে খবর দিলে লাশ উদ্ধার করে এবং অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

আরো সংবাদ পড়ুন
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের যোকোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

প্রযুক্তি সহায়তায় মাল্টিকেয়ার