সাতক্ষীরায় ভারত ফেরত ১১ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত

রাজেশ গৌড় রাজেশ গৌড়

দুর্গাপুর,নেত্রকোনা

প্রকাশিত: ১০:২৬ অপরাহ্ণ, মে ২১, ২০২১

সাতক্ষীরায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারত ফেরত ১৩৯ জন পাসপোর্ট যাত্রীর মধ্যে ১১ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাকিরা করোনামুক্ত থাকায় তাদের ফুলেল শুভেচ্ছা ও করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট প্রদানের মাধ্যমে বিদায় জানিয়েছে জেলা প্রশাসন।
বুধবার (১৯ মে) দুপুর থেকে সাতক্ষীরা শহরের হোটেল টাইগার প্লাস থেকে তাদের অবমুক্তকরণ কার্যক্রম শুরু হয়।

এসময় জেলা প্রশাসকের পক্ষে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শেখ তানজিললুর রহমান, জেলা পুলিশের পক্ষে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শামস ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষে ডা. জয়ন্ত সরকারসহ অন্য নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা উপস্থিত ছিলেন।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, গত ৫ মে থেকে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে আসা ৩৩৭ জন বাংলাদেশিকে সাতক্ষীরা শহরের হোটেল আল কাসেম, হোটেল টাইগার প্লাস, হোটেল হাসান, হোটেল উত্তরা ও কালীগঞ্জ উপজেলার নলতা আহসানিয়া মিশনের রেস্ট হাউজে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। এদের মধ্যে মঙ্গলবার ১৪২ জনের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষ হয়। তাদের ছেড়ে দেওয়ার আগে নমুনা পরীক্ষা করে ১১ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

তারা হলেন- সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বৈকারি গ্রামের সোনালী সুলতানা (৩২), আশাশুনি উপজেলার সন্তোষ কুমার মন্ডল (৪৩) ও আব্দুল মান্নান (৪৮), পাটকেলঘাটা থানার দীপিকা রানী ঘোষ (৩০), বাগেরহাটের মনির মোল্লা (৪০), তার স্ত্রী সাহিদা বেগম (৩২) ও শিশু জাহিদ ইমরান (৫), খুলনার আক্তার (৩০), কাজী আশিকুজ্জামান (৩০), রংপুরের কাকলি বেগম (২৮) ও মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার দীপা মণ্ডল (২৭)।

সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন সাফায়েত বাংলানিউজকে বলেন, এই ১১ জনকে সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হবে।

তবে, তাদের শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট কিনা তা জানাতে পারেননি সিভিল সার্জন।