দুর্গাপুরে পানিবন্দী মানুষের মাঝে ইউএনও’র ত্রাণ বিতরণ

রাজেশ গৌড় রাজেশ গৌড়

দুর্গাপুর,নেত্রকোনা

প্রকাশিত: ৫:৫৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২১

রাজেশ গৌড়
নেত্রকোণার দুর্গাপুর উপজেলার কাকৈরগড়া ইউনিয়নের বন্যা কবলিত অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে ইউনিয়নের বন্যা কবলিত বিভিন্ন এলাকায় এ ত্রাণ বিতরণ করা হয়। শুক্রবার(২জুলাই)দুর্যোগকালীন জরুরি সহায়তার অংশ হিসাবে প্রাথমিকভাবে কাকৈরগড়া ইউনিয়নের ৩শতাধিক পরিবারের মাঝে চাল,ডাল,তেল, চিনি, আলু, পেয়াজ,নুডুলস, মুড়ি ও গোখাদ্য এক বস্তা এবং শিশু খাদ্যের মধ্যে দুধ, বিস্কুট,চিনি, নুডুলস, তেল, সাগু বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোহাম্মদ রাজীব উল আহসান, একাডেমিক সুপারভাইজার নাসিরউদ্দিন, উপজেলা দূর্যোগ ও ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা মো.সাইফুল ইসলাম,ইউপি চেয়ারম্যান মীর নুর মোহাম্মদ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মানিক মিয়া,সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের মেম্বারগন।

কাকৈরগড়া ইউনিয়নের বেশির ভাগ গ্রাম বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি অসহায় অবস্থার মধ্যে রয়েছে ওই ইউনিয়নটি। ফলে দুর্যোগকালীন সহায়তা হিসাবে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এ ইউনিয়নের চৌলাকান্দা,শুকনাকুড়ি,সালতিপাড়া,পুকুরিয়াকান্দা গ্রামের ৩’শ পরিবারের মাঝে চাল, শিশু খাদ্য ও গোখাদ্য বিতরণ করা হয়।

ইউপি চেয়ারম্যান মীর নুর মোহাম্মদ জানান, কাকৈরগড়া ইউনিয়নটি বন্যা কবলিত এলাকা বটে। এখানকার বেশির ভাগ মানুষই কৃষিকাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে বন্যার কারণে মানুষের উপার্জন না থাকায় তারা অসহায় অবস্থার মধ্যে রয়েছে। সরকারি জিআর প্রকল্পের তরফ থেকে প্রাথমিক অবস্থায় চাল সহ অন্যান্য সামগ্রি বিতরণ করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও)মোহাম্মদ রাজীব উল আহসান বলেন, বন্যার কারণে কাকৈরগড়া ইউনিয়নের বেশির ভাগ গ্রাম এখন পানির নীচে। কয়েক’শ পরিবার পানিবন্দি অবস্থায় বসবাস করছে। কোভিড-১৯ এর প্রাদূর্ভাব মহামারি আকারে রুপ নেয়ায় সারাদেশের ন্যায় দুর্গাপুরে সর্বাত্বক লকডাউন চলমান রয়েছে। অন্যদিকে অতিবৃষ্টির ফলে বন্যার পানিতে ভাসছে অনেক পরিবারের জীবন-জীবিকা। ওদের মধ্যে অনেকের পরিবার কর্মহীন হয়ে পড়ায় খাদ্য সংকট মোকাবিলায় ৩শ পরিবারে খাদ্য সামগ্রি ও শিশু খাদ্য সহ গোখাদ্য বিতরণ করা হয়েছে। বন্যার পানি অব্যাহত থাকলে কয়েকদিনের মধ্যেই আরো পরিবারকে চালসহ অন্যান্য ত্রাণ বিতরণ করা হবে বলেও তিনি জানান।